• সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭:৫০ পূর্বাহ্ন
Headline
‘ভাত দিন, না হয় কক্সবাজার পর্যটনকেন্দ্র খুলে দিন’ সংবাদ প্রকাশের পর দুর্ভোগ নিরসনে সেই শিক্ষকের পাশে হাসানুল ইসলাম আদর #প্রত্যাবাসনের আগ পর্যন্ত সামাজিক সংহতি ও পরিবেশের পুনরুদ্ধার নিশ্চিত করতে হবে হুমকির মুখে আজিজনগর-গজালিয়াসড়কে কাট্টলীপাড়া বেইলী ব্রীজ! লোহাগাড়ায় ৬ হাজার পিস ইয়াবাসহ আটক ২ পেকুয়ায় স্বপ্নের নতুন ঘর পেল ৬০টি ভূমিহীন পরিবার হাটহাজারীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেল ২৬ পরিবার নাইক্ষ্যংছড়িতে প্রধানমন্ত্রীর ঘর উপহার পেল ২৫ গৃহহীন পরিবার ‘হলুদ সাংবাদিকতা চট্টলানিউজের পাশেও ঘেঁষতে পারে নি’ কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্রে মহেশখালীর শতভাগ মানূষের চাকরি হবে- জেলা প্রশাসক

আনোয়ারায় মোবাইল কোর্টের ভয় দেখিয়ে ২ দোকান থেকে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা চাঁদা দাবীর অভিযোগ

Reporter Name / ১১৯ Time View
Update : বুধবার, ১২ মে, ২০২১

জাহাঙ্গীর আলম, আনোয়ারা:

আনোয়ারায় উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)র নামে মোবাইল ফোনে ভ্রাম্যমাণ আদলতের অভিযানের ভয় দেখিয়ে ২ দোকান থেকে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা চাঁদা দাবীর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বুধবার(১২ মে) বেলা ১১ টায় উপজেলার বটতলী ইউনিয়নেয় রুস্তমহাট বাজারে এ ঘটনা ঘটে। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জোবায়ের আহমেদের তৎপরতায় ভুক্তভোগিরা প্রতারণার হাত থেকে রক্ষা পায়।

আনোয়ারা উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানাযায়, বুধবার সকালে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তানভীর হাসান চৌধুরী পরিচয় দিয়ে বটতলী ইউনিয়ন পরিষদের সচিব সাইফুল ইসলামের কাছে (০১৬১০-৪৬৯৮০৫) মোবাইলে জানতে চাই বটতলী রুস্তম হাটে মিষ্টির দোকান কয়টি আছে।

সাইফুল ইসলাম বনফুল ও আল মদিনা মিষ্টির দোকানের নাম বলার পর পরিষদের চৌকিদার দিয়ে তাদের ফোন নাম্বার নিয়ে রুস্তমহাট বনফুল থেকে ৭০ হাজার টাকা ও আল মদিনা হোটেল থেকে ১ লাখ টাকা বিকাশের মাধ্যমে দ্রুত পাঠানোর নির্দেশ দেয়। টাকা না পাঠালে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে বলে জানায়।

বিষয়টি তাদের সন্ধেহ হলে তারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জোবায়ের আহমেদ ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) তানভীর হাসান চৌধুরীকে অবগত করলে তাদের তৎপরাতায় প্রতারণার হাত থেকে রক্ষা পায় ২ দোকানের মালিক।

এ ব্যাপারে রুস্তমহাট বনফুলের স্বত্বাধিকারী মো. ফারুকুল ইসলাম বলেন, বুধবার বেলা ১১ টায় বটতলী ইউনিয়নের এক চৌকিদার এসে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কথা বলার জন্য আমার মোবাইল নাম্বার চাইলে আমি চৌকিদারকে নাম্বার দিয়। কিছুক্ষণ পর ০১৬১০-৪৬৯৮০৫ নাম্বার থেকে ফোন করে সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিচয় দিয়ে আমার কাছ থেকে ৭০ হাজার টাকা দাবী করে। পরে ৩০ হাজার টাকা দিতে বলে,টাকা না দিলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের হুমকিও দেয়। আমার সন্ধেহ হলে আমি বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে অবগত করি।

বটতলী ইউপি সচিব সাইফুল ইসলাম জানায়, বুধবার সকাল ১০ টায় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিচয় দিয়ে চৌকিদারের মাধ্যমে মিষ্টির দোকানের নাম্বার নিতে বলেন। আমি বিশ্বাস করে প্রথমে মিষ্টির দোকান গুলোতে চৌকিদার পাঠায়। পরে চাঁদা দাবীর বিষয়টি শুনে উপজেলা প্রশাসনকে অবগত করেছি। পরে ঐ নাম্বার বন্ধ পাওয়া যায়।

আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জোবায়ের আহমদ জানান, উপজেলা প্রশাসন ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর পরিচয় দিয়ে মোবাইল কোর্ট করার ভয় দেখিয়ে ফোনে অজ্ঞাত ব্যক্তি রুস্তমহাট ও চাতরী চৌমহনী বাজারের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে প্রতারণার মাধ্যমে চাঁদা দাবী করছে মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে প্রতারকদের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। তিনি আরো জানান, কোন প্রকার প্রতারনায় না পড়ার জন্য ব্যবসায়ীদের অনুরোদ করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category