সোমবার, ১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
আজ সোমবার | ১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

লকডাউনে’ পথ কুকুরদের পাশে খাবার নিয়ে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা

শনিবার, ০১ মে ২০২১ | ৯:৫২ অপরাহ্ণ | 111Views

লকডাউনে’ পথ কুকুরদের পাশে খাবার নিয়ে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দেশজুড়ে চলছে সর্বাত্মক লকডাউন। একদিকে বন্ধ জীবন-জীবিকা অন্যদিকে চলছে মাহে রমজান মাস৷ রমজান মাস ও লকডাউনের ফলে দিনের বেলা বন্ধ সব রেঁস্তোরা,সেইসাথে রাস্তাঘাটেও কমেছে মানুষের পদচারণা।ফলে লকডাউনের প্রভাবে খাদ্য সংকটে পড়েছে হাজার হাজার পথ কুকুরেরা। অবলা এসব কুকুর প্রাণী ‘লকডাউন’ বোঝে না৷ খাদ্য সংকটে এখন এদিক-ওদিক ছোটাছুটি করছে এসব অবলা প্রাণী। কখনো কখনো ক্ষুধার জ্বালায় মানুষের উপর চড়াও হচ্ছে। করোনার এমন ক্রান্তিকালে ‘লকডাউনে’ চট্টগ্রামের হালিশহরে খাবার নিয়ে এসব অবলা কুকুর প্রাণীদের পাশে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা৷নিজেরাই রান্না করে ইফতারের পরে খাবার নিয়ে ছুটছেন কুকুর প্রানীদের জন্য।

এ প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ( চবি) ফাইন্যান্স বিভাগের শিক্ষার্থী হাসান মাহমুদ আরাফাত বলেন,লকডাউনে কুকুরদের কি হবে? গত একবছর ধরে মহামারিতে বোবাপ্রাণীরা সবসময়ের মত অবহেলিত।লকডাউনে হাজার হাজার কুকুর খাবার পাচ্ছেনা৷ কুকুরদের খাবার সংকট মেটাতে মানবিক জায়গা থেকে আমাদের এমন কর্মসূচি। প্রতিদিন নিজ নিজ এলাকায় আমরা এসব অবলা প্রাণীদের দু-বেলা করে খাবার দেওয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছি।প্রত্যেক এলাকায়, পাহা- মহল্লার সব মানুষের উচিত এমন কঠিন পরিস্থিতিতে কিছুটা কষ্ট লাঘবে কুকুরকে খাবার দিয়ে খাবার দিয়ে পাশে থাকা।

আরেক সদস্য আদনান জাহিদ বলেন,এসব অবলা প্রাণীগুলো ‘লকডাউন’ বোঝে না।লকডাউনে আমাদের তো তাও খাবার জুটছে এসব প্রাণী তো খাবার পাচ্ছেনা।রেঁস্তোরা গুলোও এখন বন্ধ। খাবার না পেলে তো না খেয়ে তারা মারা যাবে। তাই আমাদের পথে বেরিয়ে পড়া। নিজ নিজ এলাকার আশেপাশের মানুষদের সচেতন করাও এক রকম লক্ষ্য আমাদের, পাশাপাশি দীর্ঘদিন ধরে কুকুরদের প্রাথমিক চিকিৎসা সহ ভ্যাক্সিন কার্যক্রম নিজেদের অর্থায়নে পরিচালনা করছি আমরা।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া আরেক শিক্ষার্থী রুমানা রিফাত রিমকি বলেন,স্বামী বিবেকানন্দ বলেছেন- “জীবে প্রেম করে যেই জন / সেই জন সেবিছে ঈশ্বর।” আমরা অনেকেই কুকুরকে দেখলেই ইট-পাথর ছুঁড়ে মারি। কুকুর একটা অবলা প্রাণী এসব প্রাণীকে কিছু না করলে তারাও মানুষের কোনরকম ক্ষতি করবেনা। আমাদের সকলের উচিত কুকুর প্রানীর প্রতি মানবিক আচরণ করা। লকডাউনে সবার উচিত নিজ নিজ এলাকার আশেপাশের কুকুরকে অন্তত একবেলা হলেও খাবার দেয়া।

এসময় খাবার বিতরণ চলাকালে উপস্থিত ছিলেন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থী ,শেখ রাফায়েত,মেহেদি হাসান,আসিফুর রহমান প্রমুখ।

-Advertisement-
Recent  
Popular  

Our Facebook Page

-Advertisement-
-Advertisement-