• সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭:৩৭ পূর্বাহ্ন
Headline
‘ভাত দিন, না হয় কক্সবাজার পর্যটনকেন্দ্র খুলে দিন’ সংবাদ প্রকাশের পর দুর্ভোগ নিরসনে সেই শিক্ষকের পাশে হাসানুল ইসলাম আদর #প্রত্যাবাসনের আগ পর্যন্ত সামাজিক সংহতি ও পরিবেশের পুনরুদ্ধার নিশ্চিত করতে হবে হুমকির মুখে আজিজনগর-গজালিয়াসড়কে কাট্টলীপাড়া বেইলী ব্রীজ! লোহাগাড়ায় ৬ হাজার পিস ইয়াবাসহ আটক ২ পেকুয়ায় স্বপ্নের নতুন ঘর পেল ৬০টি ভূমিহীন পরিবার হাটহাজারীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেল ২৬ পরিবার নাইক্ষ্যংছড়িতে প্রধানমন্ত্রীর ঘর উপহার পেল ২৫ গৃহহীন পরিবার ‘হলুদ সাংবাদিকতা চট্টলানিউজের পাশেও ঘেঁষতে পারে নি’ কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্রে মহেশখালীর শতভাগ মানূষের চাকরি হবে- জেলা প্রশাসক

পুটিবিলায় বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে গেল চলাচলের রাস্তা, সংস্কার কাজে বাঁধায় উভয় পক্ষের হাতাহাতি

Reporter Name / ৬৫৯ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক, লোহাগাড়া:

লোহাগাড়া উপজেলার পুটিবিলা তাঁতি পাড়া এলাকায় টানা কয়েক দিনের বৃষ্টিতে দীর্ঘ ৭০ বছরের চলাচলের রাস্তা পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় সংস্কার করতে গিয়ে উভয় পক্ষের হাতাহাতির ঘটনায় ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের লোকজন আহত হন।

গত মঙ্গলবার বিকেলে পুটিবিলা তাঁতিপাড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। উক্ত ঘটনায় উভয় পক্ষে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করছে বলে জানান পুলিশ।

পুটিবিলা তাঁতিপাড়া এলাকার মৃত মাহমদুর রহমানের ছেলে শামসুল আলম (৭০) বাদী হয়ে লোহাগাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযুক্তরা হলেন, ওই এলাকার মৃত আব্দুস ছাত্তারের ছেলে আব্দুর রহমান (৫০), তার ছেলে মো. শাহাদত (১৯), মহি উদ্দিন (৪০), হেলাল উদ্দিন(২৫) তার স্ত্রী মমতাজ (৩৫) ও আব্দুল মজিদের স্ত্রী রাশু আক্তার (৩৫)।

অভিযোগে প্রকাশ, গত ৮ জুন সকালে চলাচলের রাস্তা সংস্কার ও হাঁটার সময় সময় বাঁধা দেনন এবং হাঁটলে পা কেঁটে ফেলবে বলে হুমকি দেন। কথাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এতে বাদী, তার স্ত্রী ও সন্তান আহত হয়। স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাদের আহতবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করেন। বর্তমানেও তাদের হুমকি ধমকি অব্যাহত আছে।

সামশুল ইসলাম জানান, দীর্ঘ ৭০ বছরের চলাচলের রাস্তা জোর পূর্বক সংস্কার ও চলাচলে বাঁধা দেন বিবাদীরা। ঘটনারদিনও রাস্তা সংস্কার ও চালাচলে বাঁধা দিলে উভয় পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আমি, আমার স্ত্রী ও ছেলে আহত হয়। বিবাদী আব্দুর রহমান কারো বিচার মানে না। তার পরিবার সমাজে উৎশৃঙ্খল পরিবার হিসেবে বেশ পরিচিত।

এ ঘটনায় উভয় পক্ষের মধ্যে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোন মুহুর্তে ঘটতে পারে বড় ধরণের অঘটন। এমনটা মন্তব্য করছেন স্থানীয়রা।

পুটিবিলা ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান সুজিত বড়ুয়া কাজল জানান, আব্দুর রহমান সাবেক ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য। তিনি সদস্য থাকা সত্বেও রাস্তা নিয়ে বিরোধ চলছে। বর্তমান চেয়ারম্যানের সময়েও বিরোধ মীমাংসার জন্য কয়েকবার জমি পরিমাপ ও বৈঠক হয়েছে। রাস্তা সংস্কারের জন্য ইট বালুও নিয়ে যাওয়া হয়। বাঁধায় সাংস্কারের জন্য নেওয়া ইট ও বালু নিয়ে আসা হয়।

অভিযুক্ত আব্দুর রহমান জানান, তার পৈত্রিক সম্পত্তি দিয়ে চলাচল করছে। তারা আমাকে মারধর ধরে উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে। আমরাও তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তরেছি থানায়। তবে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে রাস্তা সংস্কারের ইট ফিরে দেওয়ার বিষয় সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান।

লোহাগাড়া থানার এসআই মো. দেলোয়ার হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে পৃথক পৃথক অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

তিনি জানান, চলাচলের রাস্তা নিয়ে মারামারির ঘটনায় উভয় পক্ষের অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। উভয় পক্ষকে আইশৃঙ্খলা বজায় রাখতে বলা হয়েছে। বিষয়টি আরো তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ অথবা সমানের চেষ্টা করা হবে বলেও জানান তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category