• সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭:৫৫ পূর্বাহ্ন
Headline
‘ভাত দিন, না হয় কক্সবাজার পর্যটনকেন্দ্র খুলে দিন’ সংবাদ প্রকাশের পর দুর্ভোগ নিরসনে সেই শিক্ষকের পাশে হাসানুল ইসলাম আদর #প্রত্যাবাসনের আগ পর্যন্ত সামাজিক সংহতি ও পরিবেশের পুনরুদ্ধার নিশ্চিত করতে হবে হুমকির মুখে আজিজনগর-গজালিয়াসড়কে কাট্টলীপাড়া বেইলী ব্রীজ! লোহাগাড়ায় ৬ হাজার পিস ইয়াবাসহ আটক ২ পেকুয়ায় স্বপ্নের নতুন ঘর পেল ৬০টি ভূমিহীন পরিবার হাটহাজারীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেল ২৬ পরিবার নাইক্ষ্যংছড়িতে প্রধানমন্ত্রীর ঘর উপহার পেল ২৫ গৃহহীন পরিবার ‘হলুদ সাংবাদিকতা চট্টলানিউজের পাশেও ঘেঁষতে পারে নি’ কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্রে মহেশখালীর শতভাগ মানূষের চাকরি হবে- জেলা প্রশাসক

লামার কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনে মাঠে খেলতে গিয়ে বৃষ্টির পানির স্রোতে ঝিরিতে পড়ে ২ ছাত্রের মৃত্যু

Reporter Name / ১২৭ Time View
Update : সোমবার, ৭ জুন, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বান্দরবানের লামার সরই ইউনিয়নের কোয়ান্টামে ফাউন্ডেশনে মাঠে খেলার সময় বৃষ্টির পানির স্রোতে ঝিরিতে পড়ে কোয়ান্টাম কসমো স্কুল এন্ড কলেজের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর দুই ছাত্রের মৃত্যু হওয়ার সংবাদ পাওয়া গেছে।

লমার সরই কেয়াজু পাড়া পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশের উপ-পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম ভূঁইয়া দুই ছাত্র মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সোমবার (৭ জুন) কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের ভিতর সকাল ১১টায় এ মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে।

নিহতরা হলেন, নিহতরা হলেন, চাপাইনবাবগঞ্জ রানীহাটি রামচন্দ্র চকবরহম এলকার রজব আলীর ছেলে আব্দুল কাদের জিলানী (১২ ) ও ঠাকুরগাঁও হাজিপাড়া এলকার বুলবুল মোস্তাফিজের ছেলে শ্রেয় মোস্তাফিজ(১১)। দুজনই লামা সরই কোয়ান্টাম কসমো স্কুল এন্ড কলেজের ৬ষ্ট শ্রেণির ছাত্র।

কোয়ান্টাম কসমো স্কুল এন্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শরিফুল আলম জানান, তারা সমবয়সী অন্যান্য শিক্ষার্থীদের সাথে বৃষ্টির মধ্যে খেলতে থাকাকালীন অতিবৃষ্টির ফলে অতিরিক্ত স্রোতে ভারসাম্য হারিয়ে নালা থেকে ঝিরিতে পড়ে যায়। নিকটে থাকা মাঠকর্মী আরিফ দ্রুত লাফিয়ে পড়ে তাদের উদ্ধার করেন। তাৎক্ষণিক দুই ছাত্রকে ঝিরি থেকে উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, সোমবার দুপুরে বান্দরবানের লামারর সরই কোয়ান্টাম কসমো স্কুল ও কলেজ প্রাঙ্গণে বৃষ্টির পানিতে খেলতে গিয়ে মাঠে একটি পানি ভর্তি বিরাট পাইপে ডুবে এই দুই ছাত্রের মৃত্যু হয়। পরে সহপাঠীরা বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে খবর দিলে তারা দুইজনকে উদ্ধার করে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষনা করেন। তবে, ঘটনাটি সকালে ঘটলেও সংবাদটি সকলের নজরে আসে সোমবার সন্ধায়।

স্থানীয়রা আরো বলছেন, শিশুর দায়িত্ব নিয়ে তারা অবহেলা করেছে। কিভাবে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় ছেলেটি স্কুল থেকে বের হয়ে এভাবে মারা গেল প্রশ্ন থেকে যায়।

লামা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো: আলমগীর হোসেন জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে মৃত ২ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছেন। ময়নাতদন্ত শেষে ছাত্রদের মরদেহ পরিবারে কাছে হস্তান্তর করা হবে এবং এই বিষয়ে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category