• মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৫০ পূর্বাহ্ন

তরুন সমাজসেবক ‘জয়নাল’সোনালী বাজার পরিচালনা কমিটির সভাপতি

Reporter Name / ৮৪ Time View
Update : শনিবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০২১

নাজিম উদ্দিন, পেকুয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের পেকুয়ার উজানটিয়া-মগনামা সোনালী বাজার পরিচালনা কমিটির অমিমাংশিত সভাপতি পদের ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গত ১৬সেপ্টেম্বর উপজেলার উজানটিয়া-মগনামা ইউনিয়নের সোনালী বাজার পরিচালনা কমিটির সভাপতি পদের ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন সাজেদা বেগম বিদ্যাপিঠে অনুষ্ঠিত হয়।

সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন ২ জন প্রার্থী। এদের মধ্যে নুরুল আবছার প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন চেয়ার প্রতীক নিয়ে। সকাল থেকে ভোটাররা উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট প্রদান করেন। মোট ২১১ ভোটারের মধ্যে ১৯৮ জন ভোটার ভোট প্রদান করেন। প্রদত্ত ভোটের মধ্যে চেয়ার প্রতিকে পেয়েছেন ৯৬ ভোট। ছাতা প্রতিকের জয়নাল আবেদীন পেয়েছেন ৯৯ ভোট। প্রদত্ত ভোটের মধ্যে ৩ ভোট যথাযথ প্রক্রিয়ায় শীল প্রদান না হওয়া নষ্ট ভোট হিসাবে বাতিল করেন ভোট গ্রহণের দায়ীত্বপ্রাপ্ত প্রিজাইডিং কর্মকর্তা মাষ্টার হানিফ চৌধুরী।

দায়ীত্বরত নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যায়, সোনালী বাজার পরিচালনা কমিটির নির্বাচনে মোট ভোট সংখ্যা ছিল ২১১ জন। তারমধ্যে ভোটাররা মোট ভোট প্রদান করেছেন ১৯৮টি। সকাল ৮ টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে দূপুর ২টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটারদের ভোট প্রদান চলে।

ভোট চলাকালীন দুপুর ২টার দিকে নির্বাচনী কেন্দ্র পরিদর্শন করেন পেকুয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আজিজুল হক,উজানটিয়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের নব-নির্বাচিত মেম্বার মোঃ কামাল হোসেন কোম্পানী,মগনামা ৬ নং ওয়ার্ডের মেম্বার শাহ আলম,সাবেক মেম্বার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আজিম ও উপজেলা যুবলীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক তারেকুল ইসলামসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা।

এ নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব পালন করেন আব্বাস উদ্দিন ও সহকারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ডা.মো. তাজুল ইসলাম। নির্বাচনে পর্যবেক্ষক হিসেবে সার্বিক তদারকি করেন সাংবাদিক জালাল উদ্দীন ও প্রিসাইডিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন মাষ্টার হানিফ চৌধুরী।

উল্লেখ্য গত ১৬ সেপ্টেম্বর অনুষ্টিত নির্বাচনে সম্পাদক, সহসভাপতি ও সদস্যপদে ভোটারদের প্রদত্ত ভোটে নির্বাচিত হলেও সভাপতি পদে ঐ ২ জনের প্রাপ্ত ভোট (৮২) সমান হওয়ায় সভপতির পদটি অমিমাংশিত থেকে যায়। ফলে ঐ ২ জনের মধ্যে সমঝোতা না হওয়ায় পুনঃ ভোট গ্রহণের সিদ্ধান্ত দেন নির্বাচন পরিচালনার জন্য গঠিত অন্তর্বর্তিকালীন নির্বাচন কমিশন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category