• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১২:১৩ পূর্বাহ্ন
Headline
নাইক্ষ্যংছড়ি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া অনুষ্ঠান লোহাগাড়া প্রিমিয়ার লীগের চতুর্থ খেলায় ১ গোলে মোহামেডানের জয় লোহাগাড়ায় ১ চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ৭ জনের মনোনয়ন বাতিল মগনামার ১ নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হলেন জনতার নেতা নজরুল ইসলাম জামিনে কারামুক্ত হলেন সাংবাদিক ইমাম খাইর কুতুবদিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব হেলাল উদ্দিন সাতকানিয়া মহিলা কলেজে বিদায় ও নবীন বরণ  লোহাগাড়া প্রিমিয়ার লীগের দ্বিতীয় খেলায় মোহামেডাম ২, মুক্তিযোদ্ধা ০ পুটিবিলা হযরত শাহ্ জালাল (রহ:) কিন্ডারগার্টেন এন্ড স্কুলে বিদায়, পুরস্কার বিতরণ ও মা সমাবেশ কুতুবদিয়ায় ২ দোকানে অগ্নিকাণ্ড

লোহাগাড়ায় অবৈধ ইটভাটায় চলছে কার্যক্রম!

Reporter Name / ১৪২ Time View
Update : শনিবার, ১৩ নভেম্বর, ২০২১

জাহেদুল ইসলাম, লোহাগাড়া:

লোহাগাড়ায় নানা জল্পনা ও কল্পনায় শুরু হয়েছে ইটভাটার কার্যক্রম। গত মৌসুমে লোহাগাড়ায় প্রায় ২ ডজন অবৈধ ইটভাটা ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছিল পরিবেশ অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসন। চলতি মৌসুমের শুরুতে পারিবেশ অধিদপ্তরের কোন প্রকার ছাড়পত্র ছাড়া এসব ইটভাটায় কার্যক্রম শুরু করে ভাটার মালিকরা।

সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা যায়, লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা নাফাটিলা পাহাড় বেষ্টিত এলাকায় এনবিকে ইটভাটা, এমবিএম ইটভাটা, চরম্বা কালোয়ার পাড়া এলাকায় এমএমবি ইটভাটা এবং এবিএম ইটভাটায় পরিবেশ অধিদপ্তরের কোন প্রকার ছাড়পত্র ছাড়াই শুরু করেছে কার্যক্রম। ইট তৈরির জন্য মাটি ও পুড়ানো জন্য কাঠের স্তুপ দেখা যায়। তবে ইটভাটা কর্তৃপক্ষ কোন প্রকার কাগজ দেখাতে নারাজ।

উল্লেখ্য, ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০১৩ (সংশোধিত) ২০১৮ অনুযায়ী আবাসিক, সংরক্ষিত ও বানিজ্যিক এলাকা, সিটি কর্পোরেশন, পৌরসভা বা উপজেলা সদর ও কৃষি জমিতে ইটভাটা স্থাপন করা যাবে না। এ আইন লঙ্ঘন করেই চলছে অবৈধ ইটভাটার কার্যক্রম।

লোহাগাগায় এসব আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে ভাটা সমূহে কার্যক্রম শুরু করায় সচেতন মহলের মাঝে বিরুপ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।

অপরদিকে, ইটভাটায় জ্বালানী হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে নিন্মমানের কয়লা। যার ফলে প্রচুর ছাই তৈরি হচ্ছে। ফলে বায়ুমন্ডলে দুষিত উপাদান তৈরি হচ্ছে।

এসব অবৈধ ইটভাটার কালো ধৌয়া মানবদেহে শ্বাসপ্রশ্বাসের মাধ্যমে প্রবেশ করলে রেসপিরেটরি সিস্টেম ক্ষতিগ্রস্ত হয়, যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। এ কারণে ইটভাটার আশপাশে বসবাসরত মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্যগত সমস্যা দেখা যায় বেশি। এছাড়া ইটভাটা থেকে নির্গত ছাই পার্শ্ববর্তী জলাশয়ে নিষ্কাশিত হয়। ওই বর্জ্য পানিতে মিশে বিভিন্ন ধরনের বিষাক্ত উপাদান যেমন: লেড, ক্যাডমিয়াম, জিংক ও ক্রোমিয়াম জলজ উদ্ভিদ ও প্রাণীর মাধ্যমে খাদ্যশৃঙ্খলের দ্বারা মানুষের শরীরে প্রবেশ করছে। ফলে মানুষ বিভিন্ন ধরনের জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। কৃষিজমির ওপরও ইটভাটার ক্ষতিকর প্রভাব রয়েছে। জমির উর্বরতা শক্তি কমছে। কাজেই সবদিক বিবেচনা করে ইটের পরিবর্তে ব্লকের ব্যবহারকে উৎসাহিত করতে সরকারকে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে।

লোহাগাড়া ব্রিকফিল্ড মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. সরওয়ার কোম্পানীর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, লোহাগাড়ায় ৪/৫ টি ইটভাটা পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র পেয়েছে। তাবে আরো কয়েকটি অপেক্ষায়। এছাড়া যেসব ইটভাটায় কাজ শুরু করেছে অনেকে হাইকোর্টে রিট করেছেন, আবার অনেকে নিজেরাই কাজ শুরু করছে।

লোহাগাড়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মাসুদ রানা বলেন, লোহাগাড়া পরিবেশেরর ক্ষতি হবে এমন ইটভাটার কার্যক্রম কোনমতে চলতে দেওয়া হবে না। তবে খুব শিঘ্রই অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে অভিযান চলবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category