• বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ০৩:০১ অপরাহ্ন
Headline
অসুস্থ সাংবাদিক সায়েদ জালালের বসতবাড়িতে ভাংচুর, আদালতের নিষেধাজ্ঞা জারি হাই কমিশনার ফিলিপ গ্র্যান্ডির জন্য আমাদের বার্তা দক্ষিণ মিঠাছড়ি আওয়ামী লীগের কমিটিতে বিএনপি-জামায়াত ও চিহ্নিত মাদক কারবারি ‘হাতের মুঠোয় ভূমি সেবা’ ইয়েস-কক্সবাজারের কার্যকরি পরিষদ পুনর্গঠন ভূমিদস্যুদের মিথ্যাচার ও প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ লোহাগাড়ায় পুলিশের উপর হামলার মূলহোতা কবির ও তার সহযোগী র‍্যাবের হাতে আটক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভিত্তিক প্রতিভা অন্বেষণ করছে কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমী জাহাজ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদকের পিতার মৃত্যু, তোফায়েল আহমেদের শোক টেকনাফে মাদক কারবারি ভুট্টুর পা কেটে হত্যা

আল্লাহ পাক হচ্ছেন ‘রাব্বুল আলামীন’ আর তার হাবীব হযরত মুহাম্মদ (সা:) হলেন ‘রাহমাতুল্লিল আলামীন” আব্দুল হাই নদভী

Reporter Name / ২৪২ Time View
Update : শুক্রবার, ৫ নভেম্বর, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বায়তুশ শরফের পীর, বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক আল্লামা মোহাম্মদ আবদুল হাই নদভী (ম.জি.আ) বলেন, আল্লাহ তায়ালা মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) কে প্রেরণ করেন রহমত স্বরূপ। হযরত মুহাম্মদ (সা:) তামাম সৃষ্টি ও ভূ-মন্ডলের জন্য আল্লাহর পক্ষ থেকে সর্বশ্রেষ্ঠ ও সর্বোত্তম রহমত। তার সুমহান জীবনাদর্শ গোটা জাহানের জন্য নিয়ামত, শ্রেষ্ঠ সম্পদ। তিনি কেবল মুসলমান বা মানব জাতির রহমত নয়, কুল মাখলুকাতের জন্য রহমত ও বরকত।

আল্লাহ পাক আল কুরআনের সুরা-আম্বিয়ার ১০ নং আয়াতে ইরশাদ করেছেন, “হে নবী, আমি আপনাকে সমগ্র বিশ্ব জগতের জন্য রহমত স্বরূপ প্রেরণ করেছি”। তিনি বলেন, এই রহমতের পরিধি কোন বিশেষ অঞ্চল বা গোষ্ঠীর মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়, বরং সমগ্র বিশ্ব, জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলের প্রতি সর্বত্র সমভাবে প্রযোজ্য।আল্লাহ তা’য়ালা যুগে যুগে মানবতার মুক্তির লক্ষ্যে পৃথিবীর বিভিন্ন জনপদ ও গোত্রের নিকট বিভিন্ন নবী ও রাসুলকে প্রেরণ করলেও রাসুল (সঃ) কে শেষ নবী হিসাবে সমগ্র বিশ্ব মানবতার জন্য প্রেরণ করেছেন। কিয়ামত পর্যন্ত সকল মানুষের জন্য অনুপম আদর্শ। তিনি পৃথিবীর সবচেয়ে বর্বর একটি জাতিকে শ্রেষ্ঠ জাতিতে পরিণিত করে পৃথিবীতে অনাগতের জন্যও এক অতুলনীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন রেখে গেছেন।

রাহবারে বায়তুশ শরফ আল্লামা আবদুল হাই নদভী বলেন, আল্লাহ তা’য়ালা নিজে হচ্ছেন ‘রাব্বুল আলামীন’ আর তার হাবীব হযরত মুহাম্মদ (সা:) হলেন ‘রাহমাতুল্লিল আলামীন’। তাই হুযুর পাক (সা:) শুধু মুমিনদের জন্য রহমত নয়, বরং মানুষ-ফেরেশতা, জীব-জন্তু কুল মাখলুকাতের জন্য রহমত। এজন্য আমাদের প্রিয় নবী (সা:) এর আগমন বার্তায় শুধু মা আমেনা বা দাদা আব্দুল মুত্তালিব খুশি নয়, বরং তার আগমনে প্রকৃতির গাছ-পালা, চন্দ্র-সূর্য, পশুপাখি, ভূমন্ডল- নভোমন্ডল সবাই আনন্দে উদ্বেলিত ছিল। বায়তুল্লাহ তাঁর নূরের জ্যোতিতে জ্যোতির্ময় হয়ে উঠলো এবং তারকারাজি জমিনের নিকটবর্তী হলো। তামাম দুনিয়া প্রাচ্য হতে প্রতীচ্য পর্যন্ত আলোকিত হল। অন্য দিকে তাঁর আগমণে সকল অন্যায়, অভিচার, অত্যাচার, কুসংস্কার, মিথ্যা, অজ্ঞতা অন্ধকারসহ সকল গোমরাহীর পরিসমাপ্তি ঘটলো।

তিনি বলেন, পবিত্র কোরআনুল করিম অঞ্চল, গোত্র, জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে প্রতিটি আদম সন্তানের জন্য চিরন্তন ও শাশ্বত বিধান। এই মহাগ্রন্থের পূর্ণ বাস্তবায়নের জন্যই প্রেরিত হয়েছিলেন রাসুলে পাক হজরত মুহাম্মদ (সা.) এবং পবিত্র কোরআনুল করিমের অনুসৃত নীতিমালাই ছিল তার জীবন-দর্শনের মূল উৎস। এ কারণেই মানবজাতি যাতে আল্লাহর প্রতিনিধি হিসেবে নিজেদের ব্যক্তিগত জীবন, সামাজিক জীবন, রাষ্ট্রীয় জীবন মহাগ্রন্থের আলোকে রূপায়ন করে ইহকাল ও পরকালের সাফল্য অর্জন করতে পারে, তার জন্য মহানবী (সা.) আজীবন সংগ্রাম করেছিলেন এবং প্রতিটি ক্ষেত্রে এই মহাগ্রন্থের চিরন্তন বাণীকে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। তার জীবন-দর্শন কোনো স্বতঃস্ফূর্ত কর্মকাণ্ড নয় বরং আল্লাহপাক প্রদত্ত ঐশীবাণীর বাস্তব রূপায়ণ।

রাহবারে বায়তুশ শরফ আল্লামা আবদুল হাই নদভী ৫ নভেম্বর ২০২১ ইং জুমাবার বাদ মাগরিব আশেকে রাসুল (সাঃ) চুনতির হযরত শাহ মাওলানা হাফেজ আহমদ (র.) প্রকাশ শাহ্ সাহেব কর্তৃক প্রবর্তিত ১৯ দিনব্যাপী চট্টগ্রামের ঐতিহাসিক চুনতি সীরাতুন্নবী (সা.) মাহফিলের সমাপনী দিবসের প্রধান অধিবেশন বাদ মাগরিব বিশাল সমাবেশে নির্ধারিত বিষয়বস্তু “ওয়ামা আরসালনাকা ইল্লা রহমাতুল্লিল আলামীন” এর উপর প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা গুলো বলেন।

আলহাজ্ব মাওলানা সিরাজুল আরেফিন এর সভাপতিত্বে মাহফিলে বক্তব্য রাখেন ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আহসানুল্লাহ (আহসান সাইয়েদ)। সম্মানিত অতিথি উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর ড. আবু বকর রফিক, ড. মাওলানা ঈসা শাহেদী, চুনতি হাকিমিয়া কামিল মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা হাফিজুল হক নিজামী, সীতাকুন্ড আলীয়া মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা মাহমুদুল হক, মাওলানা অলি উদ্দিন মোহাম্মদ, মাহফিল মিডিয়া কমিটির আহবায়ক তৈয়বুল হক বেদার। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন চুনতি হাকিমিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা ফারুক হোছাইন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category