• বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ১২:১৬ অপরাহ্ন
Headline
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভিত্তিক প্রতিভা অন্বেষণ করছে কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমী জাহাজ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদকের পিতার মৃত্যু, তোফায়েল আহমেদের শোক টেকনাফে মাদক কারবারি ভুট্টুর পা কেটে হত্যা কুতুবদিয়া বড়ঘোপ ৪নং ওয়ার্ড আ. লীগের কমিটি অনুমোদন, সভাপতি কামাল, সম্পাদক আব্দুস সাত্তার লোহাগাড়ায় বেড়াতে এসে পুকুরে ডুবে হেফজ বিভাগের ছাত্রের মৃত্যু ভারী যানবাহন চলাচলে ঝুঁকিপূর্ণ বদরমোকাম! কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত থেকে নিখোঁজ লোহাগাড়ার যুবকের মরদেহ মহেশখালীতে উদ্ধার লোহাগাড়ায় পুলিশের হাতের কব্জি কেটে নিল আসামী! রামুতে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রকৌশলীর মৃত্যু কুতুবদিয়ায় দেশীয় অস্ত্রসহ আ’লীগ নেতা গ্রেপ্তার

লোহাগাড়ায দলিল জালিয়াতি, প্রকৃত ব্যক্তির পক্ষে আদেশ দিলো এসিল্যান্ড

Reporter Name / ৪১২ Time View
Update : সোমবার, ১১ অক্টোবর, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক, লোহাগাড়া:

লোহাগাড়ায় দলিল জালিয়াতি করে দীর্ঘদিন পরের জমি ভোগ করার অভিযোগ উঠেছে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের গোলাম নবী হাজির পাড়া এলাকার মৃত তজু মিয়ার ছেলে মুহাম্মদ হোসেনের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ টি তুলেছেন আমিরাবাদ কিল্লার আন্দর এলাকার মৃত আবদুল হাকিমের ছেলে মুহাম্মদ নাজির আহমদ।

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে মোহাম্মদ হোসেন একটি জায়গার দলিল জালিয়াতি করে নামজারি করেছিল। পরে বিষয়টি উক্ত দলিলের বিরুদ্ধে আপত্তি জানান কিল্লার আন্দর এলাকার মুহাম্মদ নজির গং।

উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) মোঃ খোরশেদ আলম চৌধুরীর দৃষ্টিগোচর হলে তিনি বিষয়টি তদন্ত করেন।

তদন্ত করে দেখতে পান নজির আহমদ গং প্রকৃত জায়গার মালিক । মোহাম্মদ হোসেন দলিল জালিয়াতি প্রমাণিত হলে গত ২৫/০৮/২০২১ তারিখে নজির আহমদ গং এর পক্ষে আদেশ দিয়েছেন উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) মুহাম্মদ খোরশেদ আলম চৌধুরী ।

ভুক্তভোগী মুহাম্মদ নজির আহমদ জানান, আমার জায়গার দলিল জালিয়াতি করে প্রতারণা করে নামজারী করেছিল মুহাম্মদ হোসেন। আমি সেটার বিরুদ্ধে উপজেলা সহকারী কমিশনার বরাবরে আবেদন করলে তদন্ত করে মাননীয় এসিল্যান্ড স্যার আমার পক্ষে আদেশ দেন।এছাড়াও এলাকায় তার বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ রয়েছে।

অভিযুক্ত মুহাম্মদ হোসেন মুঠোফোনে উক্ত প্রতিবেদককে জানান, উপজেলার জনৈক এক ব্যক্তিকে নামজারী করতে দিয়েছিলাম। সে আমাকে একটি দলিল তৈরী করে দেন। সেটা  অনেক দিন আগে। তবে, আমি কোন ধরণের দলিল জালিয়াতি করিনি। এটা আমার বিরুদ্ধে ষড়ষন্ত্র চালানো হচ্ছে। দলিল জালিয়াতি ব্যাপারে আমি জড়িত নয় বলেও তিনি জানান।

এ ব্যাপারে লোহাগাড়া উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) মুহাম্মদ খোরশেদ আলম চৌধুরী জানান, মুহাম্মদ হোসেন নামে এক ব্যক্তি বিগত অনেক দিন পুর্বে একটি দলিল জালিয়াতি করে এক ব্যক্তিতে হয়রানী করার চেষ্ঠা চালায়।  ।পরবর্তীতে নজির গং সেটার বিরুদ্ধে আপত্তি জানালে তদন্তপুর্বক প্রকৃত ব্যক্তি নজিরের পক্ষে আদেশ প্রদান করা হয়।পরবর্তীতে কেউ যদি দলিল জালিয়াতি করলে আমরা কঠোর ভাবে ব্যবস্হা নিবো।

নজির আহমদ গং এর পক্ষে আদেশ পাওয়ায় উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) মোঃ খোরশেদ আলম চৌধুরীকে অনেক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category