• শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৩৬ পূর্বাহ্ন
Headline
কউকের উচ্ছেদ অভিযান দেখে স্ট্রোক করলেন গৃহবধূ ঈদগাঁও বাজার ফরাজী পাড়া সড়ক মৃত্যুফাঁদ পুলিশের কথিত সোর্স আনোয়ারের হাতে জিম্মি নিরীহ মানুষ কুতুবদিয়ায় অযত্নে অবহেলায় সিটিজেন পার্ক! কার্গো বহনে অনিয়ম, ইউএসবাংলার চাকুরি হারালেন দুই কর্মকর্তা কক্সবাজার হোটেল মোটেল গেস্ট হাউস মালিক সমিতির সভাপতি কাশেম, সম্পাদক সেলিম বীর মুক্তিযোদ্ধা মাস্টার মমতাজুল ইসলামের দাফন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্পন্ন কুতুবদিয়া বড়ঘোপ ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচন সম্পন্ন রাঙ্গামাটির চার ইউপি চেয়ারম্যান শপথ গ্রহণ শেষে হত্যা মামলায় গ্রেফতার সোনাকানিয়ায় দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের উপর হামলা পাল্টাপাল্টি অভিযোগ, আহত-১৫

আমিরাবাদ ছৈয়দ পাড়া-মুহুরি পাড়া সড়কের বেহাল দশা!

Reporter Name / ১৮৯ Time View
Update : মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ পূর্ব মুহুরি পাড়া-ছৈয়দ পাড়া সংযোগ সড়কে দূর্ভোগ দিনদিন বাড়ছে। যেন দেখার কেউ নেই। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাও দেখে না দেখার ভান করছে বলে জানান স্থানীয়রা।

সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা যায়, মুহুরি পাড়া-ছৈয়দ পাড়া সংযোগ সড়কটিতে যেন চাষের উপযোগী। স্থানীয়রা সড়ক সংস্কার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন। স্থানীয়রা ছাড়া বাইরের কোন লোকজন মোটর সাইকেলে নিয়ে ওই সড়ক দিয়ে চলাচল করলে কাঁদাযুক্ত সড়কে মোটর সাইকেলসহ পড়ে যেতে দেখা যায়।

এদিকে, স্থানীয় মনজুর আহমদ, মোহাম্মদ আলী, আলী আহমদ ও জামাল সওদাগর বলেন, জনপ্রতিনিধিরা আসে আর যায় সড়কের কেউ খবর রাখে না। এ যেন এক মরুভূমি বাস করছি। তারা আরো বলেন, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচনের আগে সড়কের ১২৮০ ফুট দৈর্ঘ্য ফিতা দিয়ে পরিমাপ করে নিয়ে যায়। নির্বাচনে জয় লাভ করলে আগেই সড়কটি সংস্কার কাজ শুরু করবে। জনগনের দূর্ভোগ লাগব করবে। কিন্তু নির্বাচনে জয়লাভ করেই মাটি দিয়ে সংস্কার কাজ করে। মাটি দ্বারা সংস্কার কাজটি যেন দাঁড়িয়েছে চলাচলের দূর্ভোগ।

স্থানীয়রা আরো বলেন, মাটি দ্বারা সড়ক সংস্কার করায় বর্ষার শুরুতে বৃষ্টি হওয়ার সাথে সাথে সড়কটি চলাচল অযোগ্য হয়ে পড়ে। কাঁদাযুক্ত সড়ক যেন মরণ ফাঁদ। জনপ্রতিনিধিরা কথায় আর কাজে মিল রাখে না। একবার দেখার জন্যও আসেনি চেয়ারম্যান।

আমিরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম ইউনুসের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, সড়কটি পরিদর্শন করেছি। তবে ফ্লাট সলিং কাজ শুরু করতে চেয়েছিলাম, পিআইও ডাবল সলিং করার জন্য বললে কাজটি থেমে যায়। তবে র্বষার শেষে কাজ শুরু হবে বলে জানান তিনি।
লোহাগাড়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মর্কতা মো. মাহবুব আলম শাওন ভুঁইয়াকে মেবাইল ফোনে পাওয়া না যাওয়ায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category